We are available at

লেবু : দৈনিক খাওয়া জরুরী

“#লেবু “— দৈনন্দিনের সুস্থ থাকার পাসওয়ার্ড::

লিখনে —ডাক্তার ইয়ার আলী

লেবুর রস হাইড্রোক্লোরিক এসিড এবং বাইল এসিড তৈরীতে বৃদ্ধি ঘটায় এবং এদের কোয়ালিটিও উন্নত করে৷ এর মধ্যে থাকা মাইক্রোমিনারেল সল্টস বিভিন্ন জীবানু যেমন unproductive bacteria, mold,yeast,fungus( যেগুলি লিভারে বিরাজ করে) প্রভৃতিগুলিকে বিনষ্ট করে৷
ফলে, লিভারের ইমিউনিটি বৃদ্ধি পায়৷ বায়ো-একটিভ রিচ ক্যালসিয়াম এরই মধ্যে থাকা ভিটিমিন সি এর সঙ্গে বন্ড তৈরী করে এবং দুটোই লিভারে প্রবেশ করে৷ এরা stagnant, sluggish,fatty liver কে সক্রিয় করে লিভারের ফ্যাট সেলগুলিকে দুর্বল করে দিয়ে লিভার থেকে নির্গমন করে দেয়৷ ফলে, ওজন কমাতেও সাহায্য করে৷ লেবুর রসের একটিভ মলিকুলগুলি ও বায়ো-একটিভ ওয়াটার লিভারকে হাইড্রেট করে৷ ফলে, Dirty Blood Syndrome ( চোখের নিচে কালি, ইনসমনিয়া, রেনড্স ডিজিজ, প্রেসার প্রভৃতি ) গুলি থেকে সুস্থতা পাওয়া যায়৷ প্রত্যেক কোষের গ্লুকোজ আবসর্পশন বাড়ায় ও প্যাংক্রিয়াসকে প্রোটেক্ট করে ব্লাড ফ্যাট কমিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে ৷ ইনসুলিন রেসিস্টান্সি কমে যায়৷

অতএব, দৈনন্দিন ৩—৪ টা লেবু চিপে জলের সাথে পাণ করুন৷
সুফলটা দেখুন!! অনেক সিন্থেটিক ড্রাগকেউ বহু পিছনে ফেলে দিবে৷

DETOX Reaction:

যে সকল লোকেদের লিভার ইতিমধ্যে বিভিন্ন জার্মস ও তাদের বাই প্রোডাক্টস, বিভিন্ন হেভি মেটালস ও তাদের বাই প্রোডাক্টস, বিভিন্ন রকম কৃত্রিম কেমিক্যালস, চর্বি বা কোলেস্টেরল প্রভৃতি দ্বারা পরিপূর্ণ বা স্যাচুরেট থাকে এবং লিভারের স্বাভাবিক কাজকর্মের বহুল ব্যাঘাত ঘটে, তাদের লিভারে হিলিং ফুড যেমন লেবু,আপেল,মৌসম্বি,কমলা,ব্লু বেরি,ড্রাগোন ফ্রুট ,স্প্রীলুনা,ধনে পাতার রস, সেলেরি জ্যুস প্রভৃতির এক্টিভ মলিকুল যখন লিভারে প্রবেশ করে তখন ঐ সব আবর্জনাগুলি পিত্তের মাধ্যমে ক্ষুদ্রান্তে নামলে প্রচন্ড রকমের এসিডিটি বা গ্যাস হয়৷ এই রিয়াকসনে শারিরীক কিছুটা অস্বস্তি, মাথাঘুরা,মাথা ব্যাথা,পেটে দুর্গন্ধ,পেট ফাঁপা প্রভৃতি হতে পারে৷
প্রকৃতপক্ষে, এই রিয়াকসনটা লিভারের সর্বোপরি শরীরের জন্য আখেরে ভালোর জন্যই হচ্ছে! অনেক সময় নিউরোটক্সিন বেশী হলে এলার্জিও হতে পারে৷

এই রিয়াকসনে ভয় না করে বেশী বেশী জল খান, পারলে লেবু জলই৷ পারলে, ইচ্ছাকৃত বমি করেন৷

খুবই অসুবিধা হলে, Tab. Stemetil MD 5
একটা ট্যাবলেট জিবের তলে দিন৷
এলার্জি হলে, Tab. Vozet 5 mg একটা খেতে পারেন৷

এই রিয়েকসন ততদিন হবে,যতদিন আপনার লিভারের সুপারফিসিয়াল লেয়ারে স্তূপীকৃত আবর্জনা না পরিস্কার হবে৷ অধিকাংশ ক্ষেত্রে, ৪-১৫ দিনের মধ্যে স্বাভাবিক হয়ে যায়৷

ডিটক্স রিয়েকসন হলে অল্প অল্প করে লেবু জলে অভ্যস্ত হন৷ ধীরে ধীরে বাড়ান৷
এই রিয়েকসনকে অভারকাম করতে পারলেই, আপনার লিভার অনেকটা সতেজ ও সুস্থ হবে৷ এবং পরবর্তীতে ঐ লেবুতেই বা যে ফলগুলি খেলে গ্যাস হচ্ছিল,তাতেই আপনার গ্যাস ভাল হবে৷ আপনার পেট ভাল থাকবে৷

এই সুফল পেতে দরকার একটু ধৈর্য্য ও সময়৷ লিভারের যত্ন নেওয়া মানে আপনার পুরো শরীরের যত্ন নেওয়া—এটা মাথায় রাখবেন৷ কারণ, Liver is PEACE Maker and Heart is PACE maker.

Leave a Comment

Your email address will not be published.

2 + nineteen =